তেলে কালো চারদিক ডলফিনের দেখা নেই : দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি

Daily Kaler Kantho | 12 December 2014
নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা ও মংলা
নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা ও মংলা
————————————————
* জাহাজ উদ্ধার, তেল তুলবে এলাকাবাসী – See more at: http://www.kalerkantho.com/print-edition/first-page/2014/12/12/162034#sthash.VhnQ2yVC.dpuf

পানির ওপর ভাসছে থকথকে কালো তেল। সুন্দরবনের বিস্তীর্ণ অঞ্চলজুড়ে এমন ভয়াবহ দৃশ্যই চোখে পড়ে। ছবি : কালের কণ্ঠ
জরুরিভিত্তিতে তেল দূষণের বিস্তার রোধ ও তা অপসারণে স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করা দরকার। সরকার অবিলম্বে এ উদ্যোগ নিলে সুন্দরবনের বিপন্নতা কমানো সম্ভব হবে। সরকারের আন্তরিকতা চোখে পড়লেও জরুরি উদ্যোগ দেখা যাচ্ছে না। গতকাল খুলনা প্রেসক্লাবে নাগরিক সমাজের জোট ‘সুন্দরবন পর্যবেক্ষণ দল’ আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা এসব কথা বলেন।
বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা), বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতি (বেলা), উপকূলীয় জীবনযাত্রা ও পরিবেশ কর্মজোট (ক্লিন), গ্রামীণ জীবনযাত্রার স্থায়িত্বশীল উন্নয়নের জন্য প্রচারাভিযান (সিএসআরএল), ইক্যুইটি অ্যান্ড জাস্টিস ওয়ার্কিং গ্রুপ- বাংলাদেশ (ইক্যুইটিবিডি), ফরেস্ট পিপলস্ প্রোগ্রাম (এফপিপি) ও ম্যানগ্রোভ অ্যাকশন প্রোজেক্ট (ম্যাপ) যৌথভাবে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ক্লিনের প্রধান সঞ্চালক হাসান মেহেদী।
সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, ২০০২ সালে বাংলাদেশ সরকারের উদ্যোগে তিনটি আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান সুন্দরবনে তেল দূষণের সম্ভাব্য ক্ষতি বিষয়ে একটি সমীক্ষা চালায়। তেল দূষণ থামানো না গেলে প্রথম ১৫ দিনের মধ্যে পাখি, কচ্ছপ, ছোট মাছ ও অমেরুদণ্ডী প্রাণী মারা যেতে পারে বলে ওই সমীক্ষা প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল। তবে তারপর এক যুগ পেরিয়ে গেলেও কোনো প্রস্তুতি নেওয়া হয়নি।

বক্তারা বলেন, দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া না হলে প্রাণবৈচিত্র্য ধ্বংসের পাশাপাশি মানবদেহেও দীর্ঘমেয়াদে ক্যান্সার, কিডনি ও যকৃত অকেজো হয়ে যাওয়া, স্নায়ুর স্থায়ী ক্ষতিসাধন, রক্তচাপ বেড়ে যাওয়া এবং রক্তের তারল্য বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

 জাহাজধার, তেল
তুলবে এলাকাবাসী – See more at: http://www.kalerkantho.com/print-edition/first-page/2014/12/12/162034#sthash.VhnQ2yVC.dpuf
ইউএনডিপির উদ্বেগ, পাশে থাকার আগ্রহ
* জাহাজ উদ্ধার, তেল তুলবে এলাকাবাসী – See more at: http://www.kalerkantho.com/print-edition/first-page/2014/12/12/162034#sthash.VhnQ2yVC.dpuf
নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা ও মংলা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may use these HTML tags and attributes:

<a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>